কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করার সেরা কিছু ওয়েবসাইট।

কপিরাইট ফ্রি ভিডিও – আমরা যারা অনলাইনে ভিডিওগ্রাফী নিয়ে কাজ করি তাদের কাছে খুবই পরিচিত একটি শব্দ। আজকের আলোচনার বিষয় কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করা যায় এমন কিছু ওয়েবসাইট সম্পর্কে।

আমরা যারা ইউটিউব কিংবা ফেসবুকে ভিডিওগ্রাফী নিয়ে কাজ করি, তাদের প্রায়শই বিভিন্ন ধরনের ভিডিও ক্লিপের প্রয়োজন হয়। আর আমাদের পক্ষে সকল বিষয়ের ভিডিও নিজের তৈরি করা সম্ভব নয়।

যেমন মনে করুন আপনি নিউজ রিলেটেড ভিডিও তৈরি করেন। এখন নিউজের ভিডিও তৈরি করার জন্য আপনার নিশ্চয় উক্ত বিষয়ের উপর ভিডিও এর প্রয়োজন হয়। কিন্তু আমাদের কারোই নিজের পক্ষে এই সকল বিষয়ের ভিডিও করা সম্ভব না। আর এমন অবস্থায় আমরা আশ্রয় নিই কপিরাইট ফ্রি ভিডিওর।

এখন একটি কথা থেকে যায়, আমরা তো ইউটিউব থেকেও ভিডিও ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারি। কিন্তু বিষয়টি হলো ইউটিউব কিংবা ফেসবুকে যেসকল ভিডিও রয়েছে উক্ত ভিডিও গুলো কপিরাইট ভিডিও। অর্থাৎ আপনি যদি উক্ত ভিডিও গুলো আপনার চ্যানেলে ব্যবহার করেন তাহলে কপিরাইট ক্লেইম থেকে শুরু করে স্ট্রাইক ও পেতে পারেন। যার দরুন ইউটিউব থেকে ইনকামের চিন্তা তো দুরের কথা, আপনার চ্যানেলটিও ডিলিট হয়ে যেতে পারে।

ইউটিউবে আপনারা অনেকে “মায়াজাল” বা ”বিডি ভিউস” এর ভিডিও গুলো দেখে থাকবেন। তারা তাদের চ্যানেলে যে সব ভিডিও ব্যবহার করে তার 90%-95% ই বিভিন্ন কপিরাইট ফ্রি ভিডিও সাইট থেকে ডাউনলোড করা। এসব সাইট থেকে আপনি আপনার কাঙ্খিত বিষয়ের উপর ভিডিও পেয়ে যাবেন। যা সম্পূর্ন কপিরাইট ফ্রি, অর্থাৎ এসব ভিডিও ব্যবহারের জন্য আপনাকে কেউ কোন প্রকার কপিরাইট ক্লেইম করবে না।

আরো পড়ুন –

কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করার কিছু ওয়েবসাইট

এক নজরে আজকের আর্টিকেলে যেসব সাইট সম্পর্কে আলোচনা করবো –

  1. Pixabay
  2. Pexels
  3. Videvo
  4. Coverr
  5. Videezy
  6. Mixkit
  7. Splitshire


1. Pixabay

যারা অনলাইন থেকে ফ্রি ছবি ডাউনলোড করেন তাদের কাছে Pixabay খুবই জনপ্রিয় এবং পরিচিত একটি সাইট। এক কথায় কপিরাইট ফ্রি ছবি ডাউনলোডের জন্য শীর্ষে অবস্থান করছে এই সাইটটি। আর কপিরাইট ফ্রি ছবি এর সাথে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করার জন্যেও Pixabay অনেক পরিচিত।

Pixabay এর বৈশিষ্ট –

  • এখানে Photos, Illustrations, Vectors থেকে শুরু করে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এবং কপিরাইট ফ্রি মিউজিক ও পেয়ে যাবেন।
  • 360 Pixel থেকে শুরু করে 4k রেজুলেশন পর্যন্ত সকল ফরমেটেই কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।
  • Pixabay মূলত ছবি ডাউনলোডের জন্য জনপ্রিয় হলেও এখানে যথেষ্ট পরিমানে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এবং কপিরাইট ফ্রি মিউজিক রয়েছে। এখান থেকে ভিডিও বা মিউজিক ডাউনলোডের জন্য আপনাকে তাদের সাইটে লগইন ও করতে হবে না।
  • তবে হাই রেজুলেশন ছবি বা ভিডিও ডাউনলোডের ক্ষেত্রে আপনাকে তাদের সাইটে লগইন করতে হবে, ব্যাস এইটুকুই। কোন প্রকার অর্থ ছাড়াই আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেল বা ফেসবুক পেজের জন্য কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এবং কপিরাইট ফ্রি মিউজিক ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
  • Pixabay এমন একটি সাইট যেখানে তাদের ছবি, ভিডিও বা মিউজিক ডাউনলোডের জন্য কোন প্রকার Author Credit দিতে হবে না।

Pixabay License
Free for commercial use
No attribution required

প্রত্যেকটি কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এর পাশে আপনি উপরের ন্যায় Free for commercial use এবং No attribution required নামক একটি মেসেজ দেখতে পাবেন। এর অর্থ হলো উক্ত ভিডিও টি কপিরাইট ফ্রি এবং এটি Commercial এবং Non Commercial বা Editorial যে কোন ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে, যার জন্য আপনাকে কোন প্রকার ক্রেডিট প্রদান করতে হবে না।

আরো পড়ুন –
Commercial বা Editorial ছবি/ভিডিও কি সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আর্টিকেলটি পড়ুন।

2. Pexels

কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এর জন্য আমি এবার যে সাইটটির নাম বলবো সেটা হলো Pexels। আমি নিজেও ব্যাক্তিগত ভাবে এই সাইটটি অনেক বেশি পছন্দ করি, এর অন্যতম একটি কারন হলো এদের সচ্ছতা।

আমরা অনলাইন আয় এর সাথে জড়িত তাদের প্রায় সাবারই একটি কমন সমস্যা হলো, আমারা যে প্লাটফর্মেই কাজ করি না কেন সেই প্লাটফর্মের পলিসি কখনো পড়ে দেখি না। তবে তার মানে এই না যে আমরা পলিসি গুলো জানিনা। মূল বিষয়টি হলো আলসেমী।

যেমন মনে করুন, যারা ব্লগিং বা ইউটিউব আয়ের সাথে জড়িত, তাদের যদি প্রশ্ন করা হয় আপনি কখনো গুগল এর অ্যাডসেন্স পলিসি বা ইউটিউবের কমিউনিটি গাইডলাইনস পড়ে দেখেছেন কিনা? তাহলে 100 জনের 90 জনই বলবে তারা কখনই এই পলিসি গুলো পড়ে দেখেনি। বরং বিভিন্ন আর্টিকেল বা ইউটিউব ভিডিও থেকে তারা এই বিষয়ে জেনে নিয়েছে। এর মূল কারন হলো, আমাদের বেশির ভাগ কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের পক্ষে তাদের পলিসি সম্পূর্ন পড়ে বোঝা সম্ভব নয়।

তবে Pexels এমন একটি প্লাটফর্ম যেখানে আপনি একজন এন্ট্রি লেভেলের একজন কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হলে ও খুব সহজেই তাদের পলিসি সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন। মাত্র কয়েকটি বাক্যে সম্পূর্ন সাইটের পলিসি খুবই সাবলীল ভাষায় উপস্থাপন করা হয়েছে।

এখন আপনি প্রশ্ন করতে পারেন, কপিরাইট ফ্রি সাইট থেকে ভিডিও এবং মিউজিক নেবো তাহলে এত পলিসি পড়ার কি দরকার?

কথা গুলো এইজন্যই বলছি কারন, কপিরাইট সাইট থেকে কন্টেন্ট নিলেও সেখানে সকল প্রকার কন্টেন্ট কপিরাইট ফ্রি না ও হতে পারে। ঠিক যেমন আপনি এই ধরনের বিপদে পড়ে যেতে পারেন Videvo সাইটে। সেখনে ভিডিও কন্টেন্ট গুলো কপিরাইট ফ্রি হলে ও মিউজিক গুলো কিন্তু কপিরাইট ফ্রি নয়।

Pexels এর বৈশিষ্ট্য –

  • এখানে আপনি প্রচুর সংখ্যাক ভিডিও এবং ছবি পাবেন যা সম্পূর্ন কপিরাইট ফ্রি।
  • এখানে অসংখ্যা ভার্টিকাল ভিডিও পাবেন যা আপনি ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক বা টিকটকেও ব্যবহার করতে পারবেন।
  • Pexels সাইটটি আপনি অ্যাপের মাধ্যমেও আপনার মোবাইলে ব্যবহার করতে পারবেন।
  • এছাড়া Pexels এ বাউজার এবং ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন সুবিধাও রয়েছে।
  • আসুন তাহেলে এক নজরে দেখে নেওয়া যাক Pexels এর পলিসি সম্পর্কে –
  • যে কাজ গুলো করতে পারবেন –
  • Pexels এর সকল ছবি ও ভিডিও কমার্শিয়াল বা মনিটাইজ এবং নন কমার্শিয়াল বা এডিটোরিয়াল উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে।
  • এখানে যে কোন ছবি বা কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এর মালিককে কোন প্রকার ক্রেডিট প্রদান করার প্রয়োজন নেই। অর্থাৎ এখানে ক্রেডিট এর কোন ঝামেলা নেই, তবে ক্রেডিট দিলে ভালো। Pexels কখনো আপনাকে এই বিষয়ে বাধ্য করবে না।
  • আপনি নিজের ইচ্ছা মতো Pexels এর সকল ছবি বা কপিরাইট ফ্রি ভিডিও মডিফাই বা এডিট করে ব্যবহার করতে পারেন।

Pexels এ যে কাজ গুলো করতে পারবেন না –

  • Pexels এর কপিরাইট ফ্রি ভিডিও বা ছবি কোন প্রকার পোষ্টার বা প্রিন্ট এর ক্ষেত্রে ব্যবহারে অবশ্যই সেটি এডিট করে নিবেন।
  • Pexels এর ছবি বা ভিডিও তে যে সকল ব্যাক্তিদের ছবি দেওয়া আছে তাদের কে আপনার প্রোডক্টের প্রোমোটার হিসাবে ব্যবহার করবেন না। যেমন – Pexels থেকে কোন একজন ব্যাক্তির ছবি ডাউনলোড করে সেই ব্যাক্তিকে নিজের কোন প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপন অভিনেতা বা অভিনেত্রী হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।
  • Pexels থেকে ডাউনলোড করা ছবি বা ভিডিও গুলো অন্য কোন স্টক ফটোগ্রাফি সাইটে নিজের বলে বিক্রি করতে পারবেন না। অর্থাৎ অনেকে ভাবতে পারেন, অনলাইনে বিভিন্ন স্টক ফটোগ্রাফি সাইট রয়েছে যেখানে ছবি বা ভিডিও বিক্রি করা যায় অর্থ আয় করা যায়, এবং সেখানে এই ছবি বা ভিডিও গুলো বিক্রি করে অর্থ আয় করতে চান – এমনটা কোন ভাবেই করা যাবে না।

এখানে ক্লিক করে Pexels এর পলিসি গুলো নিজেও পড়ে নিতে পারেন।

3. Videvo

Videvo কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য অনেক জনপ্রিয় একটি সাইট। এখানে কেবল ভিডিও নয় সাথে মোশন গ্রাফিক্স, সাউন্ড ইফেক্ট এবং মিউজিক ও ডাউনলোড করতে পারবেন।

তবে একটু আগেই যে সমস্যাটির কথা বলছিলাম, অর্থাৎ কপিরাইট ফ্রি সাইট হলেই যে সকল প্রকার কন্টেন্ট কপিরাইট ফ্রি হবে সেটা নাও হতে পারে। আর এই বিষয়টি Videvo এর ক্ষেত্রে কার্যকর।
কেননা এখানে মিউজিক গুলো কমার্শিয়ালি বা মনিটাইজ এর জন্য ব্যবহার করতে হলে আপনাকে অবশ্যই তাদের প্রিমিয়াম মেম্বরশীপ নিতে হবে।

যেসমস্ত ভিডিও গুলোতে Licensing and Usage এ “Use in all projects and media” লেখা থাকবে সেগুলো আপনি কমার্শিয়াল/মনিটাইজ বা নন কামর্শিয়াল/এডিটোরিয়াল সকল ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে এখানে আপনাকে অবশ্যই ভিডিও এর মালিককে ক্রেডিট দিতে হবে।

কপিরাইট ফ্রি ভিডিও

উপরের ছবিটি লক্ষ্য করুন, একটি ভিডিও উদাহরন সরুপ দেওয়া হলো। প্রত্যেকটি ভিডিও এর পাশে আপনি এমন মেসেজ দেখতে পাবেন। এখানে Licensing and Usage এ বলা হয়েছে “You must credit the author” অর্থাৎ এই ভিডিও ব্যবহারে আপনাকে অবশ্যই ভিডিও এর মালিককে ক্রেডিট দিতে হবে। এবং ”Use in all projects and media” অর্থাৎ এই ভিডিওটি আপনি যে কোন কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে যে সমস্ত ভিডিও গুলোতে “Editorial Use Only” লেখা থাকবে সেগুলো আপনি মনিটাইজ বা কামার্শিয়ালি ব্যবহার করতে পারবেন না।

এখন বলা যাক ক্রেডিট কিভাবে দিবেন। আপনি যদি ইউটিউবে এই ভিডিও ব্যবহার করে থাকেন তাহলে তাহলে আপনার ভিডিও এর Description Box এ যে কোন স্থানে ভিডিও এর মালিকের নাম এবং সাথে সাইটের নাম দিয়ে দিবেন আর যদি ব্লগে ব্যবহার করেন তাহলে আর্টিকেলের যে কোন একটি জায়গায় লিখে দিলেই হবে।

যেমন – উপরের ভিডিওটির মালিকের নাম দেওয়া আছে ”Beachfron“ অর্থাৎ আপনি ক্রেডিটটি লিখবেন এভাবে –

“Video by Beachfron from Videvo”

4. Coverr

Coverr হলো এমন একটি সাইট যেখানে আপনারা খুব সহজেই ২৫টি আলাদা আলাদা ক্যাটাগরির উপর ভিডিও পেয়ে যাবেন। আপনাকে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও গুলো খুজে বের করার জন্য কষ্টই তেমন করতে হবে না। সাইটে প্রবেশ করে একেবারে হোম পেজেই ক্যাটাগরি অনুযয়ী ভিডিও গুলো সাজানো দেখতে পাবেন।

Coverr সাইটের কিছু বৈশিষ্ট্য –

  • Coverr সাইটে থাকা সকল ভিডিওই সম্পূর্ন কপিরাইট ফ্রি।
  • এই সাইটের ভিডিও গুলো ব্যবহারের জন্য আপনাকে কোন প্রকার ক্রেডিট দেওয়ার প্রয়োজন হবে না।
  • Coverr সাইটে যে সকল বিষয়ের উপর কপিরাইট ফ্রি ভিডিও পাবেন Business $ Work, Nature, People, Fitness, Lifestyle $ Wellness, Aerial Videography, Love & Relationship, Food & Drink, Covid-19, Work from Home, Pets & Animals, Travel, Transportation, Technology, Urban, Arts, Architecture, Animated, Background, Animals, Artsy, Mood, Vertical, Zoom Vertual Background.

Coverr লাইসেন্স এ যা বলা হয়েছে –

”All Videos published on Coverr.co can be used free for commercial and non-commercial purposes. You do not need to ask permission from or provide credit to the videographer or Coverr.co”

অর্থাৎ, Coverr সাইটে যে সকল ভিডিও রয়েছে তা যে কেউ কমার্শিয়াল বা নন কমার্শিয়াল যে কোন কাজে ব্যবহার করতে পারবে। এবং উক্ত ভিডিও গুলো ব্যবহারের জন্য আপনাকে Coverr কোম্পানি বা ভিডিও এর মালিক কারো কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে না।

তবে এই সাইট থেকে ভিডিও নিয়ে আপনি অন্য কোন স্টক ফটোগ্রাফি সাইটে বিক্রি করতে পারবেন না। এবং ভিডিও গুলোতে থাকা কোন ব্যাক্তিকে আপনি আপনার নিজের কোম্পানির বিজ্ঞাপন অভিনেতা বা অভিনেত্রী হিসাবে ব্যবহার করতে পারবেন না।

5. Videezy

এবার যে সাইটের কথা বলবো সেটা হলো Videezy. এখানে ও আপনি বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন রকম ভিডিও ফুটেজ সম্পূর্ন ফিতে পেয়ে যাবেন। তবে এই সাইটটিকে সবচেয়ে শেষে রাখার আরো একটি কারন হলো, এখানে আপনি কপিরাইট ফ্রি ভিডিও পাবেন ঠিকই। কিন্তু তার পাশাপাশি প্রিমিয়াম কিছু ভিডিও রয়েছে যার জন্য আপনাকে প্রতিটা প্রিমিয়াম ভিডিও ডাউনলোড এর জন্য 19 ডলার ব্যয় করতে হবে।

অর্থাৎ এখানে প্রতিটা প্রিমিয়াম ভিডিও এর মূল্য 1 ক্রেডিট =19 ডলার । তবে আপনি যদি $49 দিয়ে 74% off এর প্রিমিয়াম প্যাকেজটি ক্রয় করেন তাহলে 49 ডলার দিয়ে 10 টি প্রিমিয়াম ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। যেখানে আপনার প্রতিটি প্রিমিয়াম ভিডিও এর খরচ পড়বে মাত্র 4.90 ডলার।

তবে টাকার কথা শুনে ভয় পাবার কিছু নেই। এখানে আপনি যে সব ফ্রি ভিডিও পাবেন তাতেই মুগ্ধ হয়ে যাবেন। এখানে বিভিন্ন অবস্ট্রাক্ট এর এনিমেশন ভিডিও আপনাকে সত্যিই মুগ্ধ করবে।

Videezy এর কিছু বৈশিষ্ট্য –

  • Videezy তে আপনি সাধারন ভিডিও থেকে শুরু করে এনিমেশন, অবস্ট্রক্ট ভিডিও, আফটার ইফেক্ট টেম্পলেট, সকল ধরনের ভিডিও পাবেন।
  • কেবল মাত্র এইচডি রেজুলেশন বললে ভুল হবে, এখানে আপনি ফ্রি ভিডিও গুলো 4k ফরমেটেও ডাউনলোড করতে পারবেন।

Videezy এর ভিডিও ব্যবহারের জন্য আপনাকে তাদের ক্রেডিট দিতে হবে। তবে মজার বিষয় হলো এখানে আপনাকে ভিডিও এর মালিকের নাম উল্লেখ করার প্রয়োজন নেই। শুধু মাত্র সাইটের নামটি দিলেই হবে।
যেমন – আপনি যদি ইউটিউবে ব্যবহার করেন তাহলে Description Box এ যে কোন জায়গায় “Videezy.com” এবং ওয়েবসাইটে ব্যবহার করলে আর্টিকেলে যে কোন জায়গায় “Videezy.com” ব্যবহার করলেই হবে।

6. Mixkit

Mixkit এ যে আপনি কেবল কপিরাইট ফ্রি ভিডিও পাবেন তা নয়। কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এর পাশাপাশি এখানে আপনি প্রচুর সংখ্যাক ফ্রি মিউজিক ক্লিপ ও পেয়ে যাবেন।

ভিডিও এর জন্য Mixkit এ দুই ধরনের লাইসেন্স ব্যবহার করা হয় তা হলো Stock Video Free License এবং Stock Video Restricted License। যে সব ভিডিও এর পাশে Stock Video Free License দেওয়া থাকবে সেই ভিডিও গুলো কোন প্রকার ক্রেডিট প্রদান করা ছাড়াই ইউটিউব বা ফেসবুক যে কোন জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন।

তবে যে সকল ভিডিও এর পাশে Stock Video Restricted License তথা উপরের ন্যায় নোট দেওয়া থাকবে সেই ভিডিও গুলো কেবল ব্যাক্তিগত কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। অর্থাৎ উক্ত ভিডিও গুলো ইউটিউব বা ফেসবুকে মনিটাইজ এর কাজে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Mixkit এ একটি অন্যতম বিশেষ সুবিধা হলো এই সাইটের কোন প্রকার ভিডিও বা মিউজিকের জন্য আপনাকে কোন প্রকার ক্রেডিট দেওয়ার প্রয়োজন হবে না। Mixkit এ যে আপনি কেবল কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এবং মিউজিক পাবেন তা নয়। এখানে আপনি প্রচুর সংখ্যাক সাউন্ড ইফেক্ট, ফ্রি Premiere Pro থেকে শুরু করে After Effects এবং Final Cut Pro এর Templates ও পাবেন। যা সম্পূর্ন ফ্রি এবং কোন প্রকার ক্রেডিট প্রদান করা ছাড়াই।

এক নজনে Mixkit এর বৈশিষ্ট্য –

  • Mixkit এ সকল প্রকার কপিরাইট ফ্রি মিউজিক, ভিডিও এবং সাউন্ড ইফেক্ট পাওয়া যায়।
  • বিভিন্ন প্রকার Editing Templates যেমন, Premiere Pro থেকে শুরু করে After Effects এবং Final Cut Pro এর Templates সম্পূর্ন ফ্রি তে পাবেন।
  • Mixkit থেকে ব্যবহৃত কোন মিউজিক, ভিডিও , সাউন্ড ইফেক্ট, Premiere Pro, After Effects এবং Final Cut Pro এর Templates এর জন্য কোন প্রকার ক্রেডিট প্রদান করতে হয় না।
  • ভিডিও এর জন্য Mixkit দুই ধরনের লাইসেন্স ব্যবহার করা হয়, তাই ব্যবহারের পূর্বে সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন।

7. Splitshire

কপিরাইট ফ্রি ভিডিও এবং ছবি ডাউনলোড করার জন্য আরো একটি ওয়েবসাইটের নাম বলবো সেটা হলো Splitshire. এই সাইট সম্পর্কে তেমন কিছুই বলার নেই কারন এখানে তেমন কোন পার্থক্য নেই।

Splitshire থেকেও আপনি কপিরাইট ফ্রি প্রচুর ভিডিও এবং ছবি পাবেন। যা আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেল বা ফেসবুক পেজে ব্যবহার করার মাধ্যমে এবং তা মনিটাইজ করার মাধ্যমে অর্থ আয় করতে পারেন।

ক্রেডিট এর কথা সম্পর্কে এই সাইটে তেমন কিছু বলা নেই। তবে এই সাইটের ভিডিও বা ছবি ব্যবহার করলে একটু কষ্ট করে ক্রেডিট দিয়ে দিবেন। যেহেতু ক্রেডিট দিতে টাকা লাগছে না।

=শেষ কথা=

আমরা যারা কপিরাইট ফ্রি ভিডিও, মিউজিক এবং ছবি নিয়ে কাজ করি তাদের সকলের উচিৎ উক্ত কন্টেন্টের মালিককে একটু কষ্ট করে হলেও ক্রেডিট দেওয়া। ক্রেডিট দিতে যেহেতু টাকা লাগে না আর ক্রেডিট দিলে কন্টেন্টের মালিকরা অনুপ্রাণিত হয়।

সুতরাং আমাদের সবারই কপিরাইট ফ্রি যে কোন কন্টেন্ট ব্যবহার করে তার মালিককে ক্রেডিট দিয়ে উদার মনের পরিচয় দেওয়া উচিৎ।

পরবর্তী আর্টিকেলে কপিরাইট ফ্রি মিউজিক নিয়ে আলোচনা করা হবে, সেই পর্যন্ত ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং ধৈয্য সহকারে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্যা ধন্যবাদ।

Share this

Leave a Comment