Shutterstock এ যেসব ছবি Upload করবেন এবং যা বেশি বিক্রি হয়। পর্ব-৪

ছবি বিক্রি করে আয় এর চতুর্থ পর্বে আমি আজ আলোচনা করবো, কোন ধরনের ছবি আপনারা Upload করবেন এবং কোন ধরনের ছবি Shutterstock এ বেশি বিক্রি হয়।

আপনারা বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও YouTube চানেলে অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় এর উপর অনেক আর্টিকেল ও ভিডিও পাবেন। এবং সেখানে কেবল ওয়েবসাইট সম্পর্কে কিছু ধারনা আর কিভাবে তৈরি করবেন সেই বিষয়েই আলোচনা করা হয়ে থাকে। কিন্তু তারা কোন ধরনের ছবি আপলোড করেছে এবং কোন ধরনের ছবি বেশি বিক্রি হয় সেই বিষয়ে কেউ তেমন কিছু বলে না।

তবে আমি মনে করি, এখানে লুকানোর কিছুই নেই। আমি সর্বদা আমার কাজ এবং তার ফলাফলটি সবার সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করি। যাতে করে আপনি এবং আমার সকল বন্ধুরা একটি বাস্তব ধারণা ও আরও ভাল তথ্য পেতে পারেন। এবং সেই অনুযায়ী কাজ করতে পারেন।

ছবি বিক্রি করে আয় এবং কিভাবে Shutterstock এ তৈরি করবেন সেই বিষয়ে আমার পূর্ববর্তী আর্টিকেল গুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন ১ম পর্ব, ২য় পর্ব, ৩য় পর্ব

ছবি বিক্রি করে আয় সম্পর্কে কিছু অভিজ্ঞতা

আমার ফটোগ্রাফী যাত্রা খুব একটা সহজ ছিল না। কেননা আমি প্রায় এক থেকে দেড় বছর সময় ব্যয় করেছি শুধুমাত্র এটা বুঝতে যে কিভাবে অনলাইনে ছবি বিক্রি করা যায়। আমি অনেক ওয়েবসাইট এর আর্টিকেল ও ইউটিউব এর ভিডিও দেখেছি। যা কেবল আমার সময়ই নষ্ট করেছে। কিন্তু পরবর্তীতে একজন আমেরিকান ও একজন ইন্ডিয়ান ফটোগ্রাফারের কাছ থেকে যথেষ্ট ধারনা পাই “Shutterstock Contributor” সম্পর্কে।

প্রথমেই বলে রাখি, আমি কোনো প্রফেশনাল ফটোগ্রাফার নই। আমি কেবল শখের বশেই ছবি তুলে থাকি এবং এখন পর্যন্ত আমি একজন স্মার্টফোন ফটোগ্রাফার। আজ আমি আমার Shutterstock প্রোফাইল এবং যে ছবিগুলো শেয়ার করব, তার সবগুলো ছবি মোবাইল দিয়ে তোলা। উল্লেখ্য আমি “Xiaomi Pocophone f1” ব্যবহার করি।

এবার আসা যাক মূল কথায়। ছবি বিক্রি করে আয়-এর শুরুতেই আমি নয়টি ভিন্ন ভিন্ন ওয়েবসাইটে ছবি আপলোড করা শুরু করেছিলাম। সেগুলো হচ্ছে – Shutterstock, Dreamstime, Depositphotos, Bigstock, pond5, 500px, Alamy, Adobe stock and Canstock। এবং সেই মুহূর্তে আমার টার্গেট ছিল, যে কোন একটি ওয়েবসাইট তো অন্তত আমার মোবাইল দিয়ে তোলা ছবিগুলো এক্সেপ্ট করবে। এবং অত্যন্ত আনন্দের সংবাদ এই যে, শুধুমাত্র Alamy ছাড়া বাকি সব কটি ওয়েবসাইট আমার ছবিগুলো Accept করে নেয়। কারণ Alamy মোবাইল দিয়ে তোলা ছবি Approve করে না।

কিন্তু সবকটি ওয়েবসাইটেই যে আমি সফল হয়েছি বিষয়টি তা নয়। এখন পর্যন্ত কেবলমাত্র Shutterstock ১০৬ বার আমার ছবি download হয়েছে। এবং Dreamstime Bigstock এ যথাক্রমে মাত্র চারবার এবং তিনবার আমার ছবি বিক্রি হয়েছে।

আমি মূলত Shutterstock এর মার্কেট সম্পর্কেই আলোচনা করব। কারণ এখান থেকেই আমি আমার প্রথম ডাউনলোড এবং প্রথম পেমেন্ট পেয়েছি। অন্যান্য ওয়েব সাইটগুলোতে আপনার ছবি বিক্রি হবার সম্ভাবনা যতটুকু তার থেকে অন্তত তিন গুণ বেশি সম্ভাবনা রয়েছে Shutterstock এ। এর মূল কারণ হলো Shutterstock এর Audience। এ সম্পর্কে আমি আমার পূর্ববর্তী আর্টিকেল গুলোতে বিস্তারিত আলোচনা করেছি, আপনি যদি সেগুলো দেখে না থাকেন অনুগ্রহ করে সেগুলো দেখে নিন। এতে আপনার বিস্তারিত বুঝতে সহজ হবে।

কোন ধরনের ছবি বেশি বিক্রি হয়

এই ধরনের প্রশ্নের উত্তরে আপনাদের সাথে ব্যক্তিগত কিছু অভিজ্ঞতা শেয়ার করা যেতে পারে। আমার একজন বন্ধু আছে ফটোগ্রাফি সম্পর্কে তার জ্ঞান আমার থেকে অন্তত তিন গুণ বেশি। কিন্তু তারপরও সে এখন পর্যন্ত কোনো ছবি বিক্রি করতে পারেনি। এর পেছনে মূল কারণ রয়েছে মার্কেট রিসার্চ।
আসলে আপনাকে প্রথমে জানতে হবে কোন ধরনের ছবি মানুষ ক্রয় করে এবং কেন ক্রয় করে।

সব সময় মনে রাখবেন সুন্দর সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্যের ছবি কেউ অর্থ খরচ করে ক্রয় করে নিজের কালেকশনে রাখবে না। একজন ক্রেতা কেবল সেই সব ছবি ক্রয় করবে যা তার কাজে লাগবে হোক সেটা কমার্শিয়াল ব্যবহারে অথবা এডিটোরিয়াল ব্যবহারে। আমার সেই বন্ধুটি এই ভুলটি করেছে। সে খুবই সুন্দর সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্যের ছবি আপলোড করেছিল বিক্রির জন্য। কিন্তু এই ধরনের স্টক ফটোগ্রাফি এজেন্সিতে প্রাকৃতিক দৃশ্য খুব কম বিক্রি হয়। তবে বিভিন্ন জনপ্রিয় দর্শনীয় স্থানগুলোর কথা আলাদা।

আপনাকে সর্বদা অবজেক্ট ফটোগ্রাফি করতে হবে। অবজেক্ট ফটোগ্রাফি হচ্ছে কোন নির্দিষ্ট একটি বিষয়কে ফোকাস করে ছবি তোলা। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে Potrait Photography, Food Photography, Landscape Photography with People, Medical Photography, Product photography. এগুলোর মধ্যে Medical এবং Food Photography এর জনপ্রিয়তা খুবই বেশি।

জনপ্রিয় কয়েকটি ক্যাটেগরি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা

Medicinal Plant: ঔষধি গাছ বা Medicinal Plant. আমাদের দেশে বিভিন্ন স্থানে অযত্নে বেড়ে ওঠা প্রচুর পরিমাণে ঔষধি গাছ দেখতে পাওয়া যায়। যা বহির্বিশ্বের দেশগুলোতে খুবই কম পাওয়া যায়। আমার নিজের ও সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া ছবিটি ও একটি ঔষধি গাছ।

Medical Equipment: আপনার যদি মেডিকেল ইকুইপমেন্ট এর ছবি তোলার কোন সুযোগ থাকে তাহলে অবশ্যই সেটি মিস করবেন না। মনে করুন আপনার নিজের অথবা পরিচিত কারোর সাথে যোগাযোগের মাধ্যমে কোন একটি মেডিকেল ল্যাবের ভিতর ছবি তোলার সুযোগ পেলেন এবং সেই সুযোগটি অবশ্যই কাজে লাগাবেন কারণ মেডিকেল ইকুইপমেন্ট এর ছবি স্টক-ফটোগ্রাফিতে খুবই জনপ্রিয় এবং এর চাহিদাও অনেক বেশি। মেডিকেল ল্যাব ছাড়াও বিভিন্ন ফার্মেসিতে ও আপনি অনেক মেডিকেল ইকুইপমেন্ট পাবেন যেগুলো ছবি আপলোড করে ভালো পরিমাণ একটি অর্থ ইনকাম করতে পারবেন।

Food Photography: বর্তমানে ফুড ফটোগ্রাফিও অনেক জনপ্রিয়। আমরা প্রায় সময় বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে যায় এবং সেখানে বিভিন্ন খাবারের ছবি এবং নিজেদের সেলফি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করে থাকি। কিন্তু এর থেকে আমরা কোন প্রকার অর্থ পাইনা। তবে আপনি যদি কিছুটা সময় নিয়ে ভিউ অ্যাঙ্গেল ঠিক রেখে বিভিন্ন খাবারের ছবিগুলো তুলে “Shutterstock” এ আপলোড করেন তাহলে সেখান থেকে ভালো পরিমাণ একটা অর্থ ইনকাম করতে পারবেন।

Product Photography: বর্তমানে প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফিও অনেক জনপ্রিয়। আপনি চাইলে আপনার আশেপাশের বিভিন্ন কোম্পানির বিভিন্ন প্রোডাক্ট এর ছবি তুলে তা এডিটোরিয়াল লাইসেন্স এ আপলোড করতে পারেন। পৃথিবীতে অনেক ব্লগার এবং ইউটিউবার আছে যারা শুধুমাত্র প্রোডাক্ট এর ছবি দিয়ে রিভিউ ভিডিও বা আর্টিকেল তৈরি করে থাকে। এবং তারা এইসব ওয়েবসাইট থেকেই তাদের কাঙ্ক্ষিত প্রোডাক্ট এর ছবি ডাউনলোড করে থাকে।

Newsworthy photo: এডিটোরিয়াল লাইসেন্সে বিভিন্ন Newsworthy image ও আপলোড করতে পারেন। বর্তমানে এর প্রচুর জনপ্রিয়তা রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে, মনে করুন আপনার এলাকায় কোন একটি সংঘর্ষ হয়েছে। এখন আপনি সেই সংঘর্ষের কিছু ছবি তুলে আপলোড করতে পারেন। বর্তমানে অনলাইনে এবং অফলাইনে উভয় ক্ষেত্রেই প্রচুর পরিমাণ সংবাদমাধ্যম রয়েছে যারা বিভিন্ন ঘটনার জন্য স্টক ফটোগ্রাফি ওয়েবসাইটগুলো থেকে ছবি সংগ্রহ করে থাকে। কেননা সাংবাদিকদের পক্ষে সকল ইভেন্টের ছবি সংগ্রহ করা সম্ভব নয়। আর নির্দিষ্ট পরিমাণ বেতনের বিনিময়ে সাংবাদিক রাখা অনেকটা ব্যয়বহুল। তাই বিশ্বজুড়ে অসংখ্য সংবাদ মাধ্যমগুলো Shutterstock এর মত স্টক ফটোগ্রাফি এজেন্সি থেকে ছবি ক্রয় করে থাকে।

কোন ধরনের ছবি আপলোড করবেন সে বিষয়ে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ টিপস এন্ড ট্রিকস রয়েছে, মনে করুন আপনি একটি গোলাপ ফুলের ছবি আপলোড করবেন। কিন্তু তার পূর্বে আপনি Shutterstock ওয়েবসাইটে গিয়ে গোলাপ ফুল বা রোজ লিখে সার্চ করবেন এবং দেখবেন অলরেডি গোলাপ ফুলের উপর কতগুলো ছবি Shutterstock এ আপলোড করা রয়েছে। এখন সেই ফলাফলগুলো ভালোভাবে লক্ষ্য করুন আপনি যদি মনে করেন গোলাপ ফুলের যে ছবিগুলো অলরেডি আপলোড করা আছে তাদের সাথে কম্পিটিশন করে পারবেন তাহলে সেই ছবিগুলো আপলোড করুন। এবং লক্ষ্য করুন তারা কোন ধরনের ছবি আপলোড করেছে এরপর আপনি কিছুটা অন্যভাবে ছবিটি উপস্থাপন করুন।

সর্বোপরি আপনি আপনার আশেপাশের পরিবেশ গুলো থেকে ছবি সংগ্রহ করুন। মনে রাখবেন কোন ছবি কখন কোন লাইসেন্স বিক্রি হবে তা কেউই বলতে পারে না। এমনটিও হতে পারে আপনার আশেপাশে যে জিনিসগুলো খুব বেশি Available তা হয়তো বা অন্য সবার কাছে অনেক দুর্লভ। তাই কখনো এমনটা ভাববেন না যে, এসব ছবি কি মানুষ কিনবে!

ছবি বিক্রি করে আয় প্রথম ডাউনলোড এবং প্রথম পেমেন্ট

আমি যখন প্রথম Shutterstock Contributor এ ছবি আপলোড করা শুরু করি তার ঠিক পাঁচ দিনের মধ্যেই প্রথমবারের মতো আমার ছবিটি ডাউনলোড হয়। সেটা ছিল একটি ঔষধি গাছের ছবি যার নাম “Saw Palmetto”। ছবিটি $.25 এ বিক্রি হয়েছিল। যদিও পরিমাণটি খুবই কম কিন্তু প্রথম ডাউনলোডে আমি অনেক বেশি এক্সাইটেড ছিলাম এই ভেবে যে ফাইনালি আমি ছবি বিক্রি করতে সক্ষম হয়েছি। এই অনুভূতিটি কেবল সেই বুঝবে যার প্রথম ছবিটি বিক্রি হয়েছে।

১৫ জানুয়ারি ২০২০ – Shutterstock Contributor থেকে 34 ডলার আমি আমার প্রথম পেমেন্ট পাই। আমি Skrill এর মাধ্যমে পেমেন্ট নিয়েছিলাম এবং আমার মিনিমাম পেমেন্ট উইথড্রল ছিল 35 ডলার। এবং এই মুহূর্তে আমার একাউন্টে 13 ডলার অবশিষ্ট রয়েছে।

Shutterstock এর Payment এর জন্য Skrill Account তৈরি ও তা Verification এর সম্পূর্ণ বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

যেসব ছবি আমি বিক্রি করেছি

এখন আমি আলোচনা করব কোন ছবিগুলো Shutterstock এ বিক্রি করেছি।

উপরের ছবিটি লক্ষ্য করুন। আমার প্রথম সর্বোচ্চ বিক্রি হওয়া ছবিটি হলো একটি ঔষধি গাছ। যার নাম “Saw Palmetto”। এই ছবিটি ৬৭ বার ডাউনলোড হয়েছে এবং এটি থেকে আমি ২০ ডলার ইনকাম করেছি। আপনি যদি Shutterstock ওয়েবসাইটে Saw Palmetto লিখে সার্চ করেন তাহলে আমার ছবিটি টপ পজিশনে পাবেন। আরো একটি মজার ব্যাপার এই যে এই ছবিটি Samsung Galaxy J5 দিয়ে তোলা। যা বর্তমানের স্মার্টফোন ক্যামেরা গুলোর মত এত উন্নত ছিল না।

দ্বিতীয় ছবি একটি মাত্র ডাউনলোড থেকে আমার সর্বোচ্চ আয় $19.96 যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ১৭০০ টাকা। এটি একটি পাইন গাছের ছবি যা আমার স্মার্ট ফোন দিয়ে ধারণ করা হয়েছিল ভারতের দার্জিলিং থেকে। এই ছবিটি “Extended Licence” এ বিক্রি হয়েছে তাই একটি ডাউনলোডেই প্রায় 20 ডলার পেয়েছি।

তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে Mexican Merry gold যা আমাদের নিকট গাঁদাফুল নামে পরিচিত। এই ছবিটি On demand লাইসেন্সে বিক্রি হয়েছে তাই একটি ডাউনলোডে $1.88 পেয়েছি।

চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে ভারতের নিউ জলপাইগুড়ি রেল স্টেশনের ট্রেনের একটি ভাস্কর্যের ছবি। এই ছবিটি চারবার বিক্রি হয়েছে এবং তা থেকে আমি ১ ডলার ইনকাম করেছি। ছবিটি Regular Subscription এ বিক্রি হয়েছে তাই প্রতি ডাউনলোডে $.25 পেয়েছি।

পঞ্চম স্থানে যে ছবিটি রয়েছে সেটিও একটি ঔষধি গাছ। আমাদের দেশের বিভিন্ন স্থানে অযত্নে বেড়ে ওঠায় এসব গাছ আপনি দেখতে পাবেন। এই ছবিটিও রেগুলার সাবস্ক্রিপশন এ চারবার বিক্রি হয়েছে এবং তা থেকে ১ ডলার পেয়েছি।

ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে একটি পাতা বাহারি গাছ। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং বাড়ির আঙ্গিনায় সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য আমরা রোপন করে থাকি। লক্ষ্য করুন এই ছবিটি পাতা বাহারি গাছটির ফল কে ফোকাস করে তোলা হয়েছে। অর্থাৎ ছবিটির মূল বিষয়বস্তু হচ্ছে পাতাবাহারী গাছটির ফল। এখন আপনি যদি শুধুমাত্র পাতাবাহার গাছের পাতার ছবি তুলে আপলোড করতেন তাহলে তা বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা কম ছিল। তাই আপনাকে একটু ইউনিক এবং আলাদা ছবি আপলোড করতে হবে।

সপ্তম স্থানে রয়েছে আমাদের সবার পরিচিত ধুতরা ফুল। ছবিটি এখন পর্যন্ত মাত্র দুইবার বিক্রি হয়েছে এবং তা থেকে $.50 পেয়েছি।

photo sell shutterstock

উপরের ছবিটি লক্ষ্য করুন এখানে আমার অন্যান্য বিক্রিত ছবিগুলো আপলোড করা হয়েছে। আপনারা উক্ত ছবিগুলো দেখে কি ধরনের ছবি আপলোড করবেন এবং কি ধরনের ছবি বিক্রি হবার সম্ভাবনা বেশি তার মোটামুটি একটি ধারণা নিতে পারেন।

ছবি গুলো ভালো রেজুলেশনে দেখতে আমার Shutterstock Profile ভিজিট করতে পারেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: আমি নিজে একজন মোবাইলফোন ফটোগ্রাফার আর এখানে আমার সকল ছবিগুলো মোবাইল দিয়ে তোলা। তবে মোবাইল দিয়ে ছবি তোলার ক্ষেত্রে অনেক রেস্ট্রিকশন বা বাধা রয়েছে।
তাই আমি আপনাদের সাজেস্ট করবো একটি DSLR camera। এখন খুব স্বল্প মূল্যে DSLR কিনতে পাওয়া যায়। ডিএসএলআর ক্যামেরা ব্যবহারে আপনাদের ছবির কোয়ালিটি মোবাইল ফোনের তুলনায় অনেক বেশি উচ্চমানের হবে যা Shutterstock সহ অন্যান্য ফটোগ্রাফি এজেন্সিগুলো ডিমান্ড করে থাকে। তবে শুরুটা মোবাইল ফোন দিয়েই করতে পারেন এতে আপনার হাতে খড়ি সহজ হবে।
মনে রাখবেন, আপনার ছবির কোয়ালিটি যত ভালো হবে তার ডিমান্ড তত বেশি হবে।

Share this

14 thoughts on “Shutterstock এ যেসব ছবি Upload করবেন এবং যা বেশি বিক্রি হয়। পর্ব-৪”

  1. আমার বন্ধুর DSLR আছে সে অনেক ভালো ফটোগ্রাফি করে । সে সাটারস্টক বা অন্য কোন প্লাটফর্মে ফটো আপ্লোড দেয় । সে ক্ষেত্রে আমি তার পারমিশন নিয়ে আমার একাউন্ট আপ্লোড দিতে পারবো???

    Reply
    • আপনি যদি আপনার বন্ধুর আপলোড কৃত ছবি পুনরায় আপলোড দেওয়ার কথা বলে থাকেন তাহলে উত্তরটি হলো “না”। Shutterstock এ একই ছবি আপনি দুইটি Account দিয়ে Upload করতে পারবেন না।
      কেননা Stock photography তে ছবি গুলো সম্পূর্ণ আপনার নিজের হতে হবে।
      তবে আপনার বন্ধু এখনো আপলোড করেনি এমন কোন ছবি যদি সে আপনাকে আপলোডের অনুমতি দেয় তাহলে আপনি সেটা সকল Stock photography সাইট গুলোতে আপলোড করতে পারবেন।

      আপনার মূল্যবান প্রশ্নের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। আরো কিছু জানার থাকলে অনুগ্রহ করে প্রশ্ন করবেন, ইনশাল্লাহ আমরা যত দ্রুত সম্ভব উত্তর এবং সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করবো। 🙂
      এবং আমাদের ফেসবুক পেজের সাথে Connected থাকবেন।

      Reply
      • ভাইয়া আমার বন্ধু তার কোন ফটো Stock photography সাইট গুলোতে আপলোড করেনি সে । কিন্তু তার ফেইসবুক প্রফাইলে আপ্লোড দিয়েছে । সেক্ষেত্রে আমি ফটোগুলো Stock photography সাইট গুলোতে আপলোড করি তাহলে কি কোন প্রব্লেম হবে ???
        আর হ্যা আমার বন্ধু পারমিশন দিয়েছে আপ্লোড দেওয়ার জন্য ।
        ধন্যবাদ

        Reply
        • তাহলে কোন সমস্যা নেই ভাই, আপনি বিনা দ্বিধায় সেই ছবি গুলো আপলোড করতে পারেন। 🙂
          এমনকি আপলোড করার পর আপনার বন্ধু ও কোন ক্লেইম করতে পারবে না। সেই ছবিগুলোর মালিক পুরোপুরি আপনিই হয়ে যাবেন।
          তবে চেষ্টা করবেন High quality Image আপলোড করতে।
          আপলোড করার পর Approve না হলে বা অন্য যে কোন সমস্যা হলে অবশ্যই জানাবেন। ইনশাআল্লাহ্ সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করবো।
          দ্রুত যোগাযোগের জন্য আমাদের ফেসবুক পেজ ব্যাবহার করতে পারেন। ধন্যবাদ 🙂

          Reply
    • Shutterstock যখন আপনার কোন ছবি রিজেক্ট করে দিবে তখন তারা নির্দিষ্ট কারণ উল্লেখ করে দিবে।
      4 Megapixel এর ছবি হতে হবে এটা একটা রিকোয়ারমেন্ট কিন্তু 4mb সাইজ হতে হবে এমন কোনো নিয়ম নেই।
      বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে যেমন, হতে পারে ছবির নয়েজ প্রবলেম বা main subject not in focused, বা অন্য কিছু।
      সবচেয়ে বেশি ভালো হয় কোন ছবিগুলো রিজেক্ট করছে তার যদি একটা স্ক্রিনশট শেয়ার করতেন।
      তাহলে সঠিক গাইডলাইন দেওয়ার সুবিধা হত।
      আপনি আমাদের ফেসবুক পেজ এ যোগাযোগ করতে পারেন।
      ইনশাআল্লাহ আপনার সমস্যার সমাধান দেওয়ার যথাসাধ্য চেষ্টা করব।
      Facebook Page-https://www.facebook.com/webangla

      Reply
  2. Vai ek’ee pic ki ami chaile bivinno website e post korte parbo? Like Shutterstock, Dreamstime, Depositphotos, Bigstock, pond5, 500px, Alamy, Adobe stock and Canstock?

    Reply
    • আপনার ছবির মালিক আপনি নিজেই। সুতরাং আপনি আপনার ছবি Shutterstock, Dreamstime, Depositphotos, Bigstock, pond5, 500px, Alamy, Adobe stock and Canstock সহ যে কোন স্টক ফটোগ্রাফি সাইটগুলোতে বিক্রির জন্য আপলোড করতে পারবেন।
      তবে ছবিগুলো non-exclusive licence এ আপলোড করবেন।
      যেমন Shutterstock এ যত ছবি আপলোড করবেন তা সবগুলো non-exclusive licence এ আপলোড হয়। কিন্তু Adobe stock, Dreamstime, Pond5, 500px এসব সাইটে exclusive এবং non-exclusive উভয় ভাবেই আপলোড করা যায়। Exclusive licence এ আপলোড করলেন আপনি সেই ছবি অন্য কোন সাইটে আপলোড করতে পারবেন না।
      সুতরাং যদি সবগুলো সাইটে একই ছবি আপলোড করতে চান তাহলে অবশ্যই non-exclusive licence এ আপলোড করবেন।

      Reply
    • জি অবশ্যই খোলা যাবে কোন সমস্যা নেই।
      কিভাবে একাউন্ট তৈরি করবেন এবং প্রোফাইল 100% কমপ্লিট করবেন সে বিষয়ে দ্বিতীয় পর্বে আলোচনা করা হয়েছে।
      এবং সেখানে আমার রেফারেল লিঙ্ক দেওয়া হয়েছে।
      অনুগ্রহ করে রেফারেল লিংকের মাধ্যমে একাউন্ট তৈরি করবেন এতে আপনার প্রতি ডাউনলোড এর জন্য আমি $0.04 পাবো।
      এটা একটা Win Win চিন্তা ধারা যাতে সবাই লাভবান হবো – ধন্যবাদ 🙂

      Reply

Leave a Comment